বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নুসরাতের ময়নাতদন্ত রিপোর্টে যা আছে



ফেনী: ফেনীর সোনাগাজীতে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় শাহবাগ থানা পুলিশের হাতে রিপোর্টটি তুলে দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ।

এ সময় রিপোর্ট সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমরা নুসরাতের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে জমা দিয়েছি। প্রতিবেদন অনুযায়ী, দাহ্য পদার্থের (কেরোসিন) মাধ্যমে দেয়া আগুনে দগ্ধ হয়েই নুসরাতের মৃত্যু হয়েছে।’

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার কনস্টেবল রমজান বলেন, ‘ঢামেকের ফরেনসিক বিভাগ নুসরাতের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। আমরা রিপোর্টটি ওসি স্যারের কাছে জমা দিয়েছি। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (পিবিআই) এসে রিপোর্টটি বুঝে নিয়ে যাবেন।’

উল্লেখ্য, গত ৬ এপ্রিল সকালে আলিম পর্যায়ের আরবি প্রথমপত্রের পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান নুসরাত জাহান রাফি। এ সময় তাকে কৌশলে ডেকে ছাদে নিয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

এরপর ১০ এপ্রিল ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নুসরাতের মৃত্যু হয়। পরের দিন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ঢামেক মর্গে তিন সদস্যের একটি বোর্ড নুসরাতের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করেন।

ময়নাতদন্তে নুসরাতের ডিএনএ, মাইক্রোবায়োলজিক্যাল টেস্টের জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

এ হত্যাকাণ্ডে দায়ের মামলায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এসএম সিরাজ উদ দৌলা ছাড়াও স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের একাধিক নেতাসহ এখন পর্যন্ত ১৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

  •