বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

‘জঙ্গি আস্তানায়‘ সন্দেহভাজনদের তিনটি পায়ের চিহ্ন’



নিউজ সর্বশেষ২৪রিপোর্ট ঢাকা: রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বসিলায় ‘জঙ্গি আস্তানা’য় বিস্ফোরণে সেখানে থাকা সন্দেহভাজনদের মরদেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে গেছে। আস্তানায় তিনটি পায়ের চিহ্ন পাওয়া গেছে। সে হিসেবে ধারণা করা হচ্ছে, অন্তত ২ জনের মরদেহ রয়েছে।

সোমবার দুপুরে অভিযানস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাত সাড়ে তিনটা থেকে র‌্যাব জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালায়। প্রথমে র‌্যাব সদস্যরা তাদের দরজায় নক করলে দরজা খুলেনি। এরপর বাসার ভেতর থেকে র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে প্রায় ১৫০ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। এর মধ্যেই ভেতর থেকে ব্যপক বিস্ফোরণ ঘটায়।

ভেতরে কতোজন নিহত সঠিক বলা যাচ্ছে না, কারণ বিস্ফোরণে সব লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে। তিনটা পায়ের নমুনা দেখা গেছে, সে হিসেবে ধারণা করা হচ্ছে, অন্তত ২ জন নিহত হয়েছেন। বোম্প ডিসপোজাল ইউনিট বাসাটিতে তল্লাশি চালাচ্ছে, পরিস্কার করতে সময় লাগবে।

জঙ্গি বিরোধী অভিযানটি র‌্যাবের ধারবাহিক কার্যক্রম। দেশের সর্বশেষ জঙ্গি নিয়ন্ত্রণ না হওয়া পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

যারা জঙ্গিবাদের দিকে ঝুঁকে পড়েছে সবাইকে ফিরে আসার আহ্বানও জানিয়ে তিনি বলেন, কেউ জঙ্গিবাদের আহ্বান জানালে বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে আমাদের জানাবেন।

ভেতরে অবস্থান করা জঙ্গিরা কোন সংগঠনের জানতে চাইলে তিনি বলেন, তারা কোন সংগঠনের প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত নই। তাদের পরিচয়ও এখনো জানা যায়নি, এ বিষয়ে পরে জানানো হবে।

এর আগে বেলা সাড়ে ১০টার দিকে র‌্যাবের এডিজি (অপারেশন) কর্নেল জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘বিস্ফোরণে জঙ্গিদের শরীর ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে বাসাটির ভেতরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েছে। আমাদের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ভেতরে সুইপিং করার সময় তা দেখতে পেয়েছে। কমপক্ষে একজনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। তবে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে।’

তিনি আরো বলেন, ভেতরে অবিস্ফোরিত বোমা ও আইইডি দেখা গেছে। সেগুলো নিষ্ক্রিয করার চেষ্টা চলছে। বিস্ফোরণে টিনশেড ভবনের টিনের চাল ও টিনের বেড়া উড়ে গেছে। ভবনটির পেছনে খাল রয়েছে। খালের পাড়ে ঝোপ-জঙ্গল। সেখানেও উড়ে যাওয়া টিনের টুকরো ও শরীরের অঙ্গ দেখা গেছে।

এদিকে, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা টিনশেড বাড়িতে বেলা পৌনে ১১টার দিকে আগুন জ্বলতে দেখা যায়। পরে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের একটি গাড়ি দেখা যায়।

এর আগে সোমবার ভোরে ওই বাড়িটি জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে ফেলে র‌্যাব। সেখান থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির কেয়ারটেকারসহ তিনজনকে আটক করা হয়।

সে সময় র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি, বসিলার মেট্রো হাউজিং এলাকায় জঙ্গিরা অবস্থান করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে এখানে অভিযান চালালে এখানকার একটি টিনশেড বাড়ির একটি কক্ষ থেকে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এর পর ভেতর থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। ভোর পৌনে ৫টার দিকে ওই বাসা থেকে বেশ বড় ধরনের একটি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।

  •