বুধবার, ২৭ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

২০২১-এও অলিম্পিক নিয়ে শঙ্কা টোকিয়োয়



স্পোর্টস ডেস্ক::
করোনা সংক্রমণের জন্য এক বছর পিছিয়ে গিয়েছে অলিম্পিক। কিন্তু ২০২১ সালের ২৩ জুলাই কি টোকিয়োর মানুষ সাক্ষী থাকবেন বিশ্বক্রীড়ার রাজসূয় যজ্ঞে? তেমন কোনও আশ্বাস তো মিলছেই না, বরং চিকিৎসক এবং জাপানের মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন যে ইঙ্গিত দিচ্ছে, তাতে পরের বছরেও না বাতিল ঘোষণা করতে হয় অলিম্পিক্স! মঙ্গলবার জাপান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ইয়োশিতাকে ইকোকুরা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, যত ক্ষণ পর্যন্ত না করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কৃত হচ্ছে, তার আগে জোর দিয়ে বলার উপায় নেই যে, এক বছর পরে নির্ধারিত তারিখেই আয়োজিত হবে অলিম্পিক্স।
ইকোকুরা বলেছেন, “প্রতিষেধক আবিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত এটা বলা খুব কঠিন যে, পরের বছর টোকিয়োতে অলিম্পিক্স হবে। আমি এটা আদৌ বলছি না যে, তেমন কোনও পরিস্থিতি তৈরি হবে কিন্তু এটাও মনে রাখা দরকার, করোনা শুধুমাত্র জাপানেই সীমাবদ্ধ নেই। তা ছড়িয়ে পড়েছে গোটা বিশ্বে। কাজেই ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখে এই ব্যাপারে অনেক বেশি নমনীয় মনোভাব নিতে হবে।”
যে সতর্কবার্তা শোনার পরে অস্বস্তি বেড়ে গিয়েছে অলিম্পিক্স আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ইয়োশিরো মোরির। এক পত্রিকায় দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, “আগামী বছরেও যদি অলিম্পিক্স আয়োজিত না হয়, তবে তাকে তো ২০২২ সালে নিয়ে যাওয়া যাবে না। ফলে অলিম্পিক্স বাতিল ঘোষণা করে দিতে হবে। অতীতে এমন তো হয়েছে। আর এখন আমাদের সকলকে লড়াই করতে হচ্ছে এক অদৃশ্য শত্রুর বিরুদ্ধে।”
তবে মোরি এখনই হাল ছেড়ে দিচ্ছেন না। তিনি বলেছেন, “আমি মনে করি, এই পরিস্থিতি আগামী বছর পর্যন্ত থাকবে না। এই সময়ের মধ্যে করোনাকে হারিয়ে জয় ঘোষিত হবে মানবজাতিরই। এবং সেই প্রেক্ষিতে টোকিয়ো অলিম্পিক্সের ঔজ্জ্বল্য এবং গুরুত্ব এক লাফে অনেকখানি বেড়ে যাবে। আর যদি তা একান্তই না হয়, তা হলে আমাদের এই কঠোর পরিশ্রম হবে বৃথা।”