রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কমলগঞ্জে বিনামূল্যের সার, বীজ ১৭শ’ কৃষকের মাঝে বিতরণ



কমলগঞ্জ প্রতিনিধি :::
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় প্রায় ১৬ হাজার আউশ চাষীর মধ্যে বিনামূল্যের সার-বীজ পাচ্ছেন ১৭শ’ কৃষক। সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদে বিনামূল্যের এই সার-বীজ প্রদান করা হয়। সরকারিভাবে বিনামূল্যে ১৭শ’ কৃষকদের মধ্যে ২০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি ও ৫ কেজি বীজ প্রদানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রফিকুর রহমান।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, ২০২০-২১ অর্থ বছরে আউশ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ করা হয়। এই উপজেলায় প্রায় ৪০ হাজার কৃষক রয়েছেন। এদের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশই দু’ফসলি ও তিন ফসলি চাষাবাদ করেন। আউশ চাষী রয়েছেন প্রায় ১৬ হাজার কৃষক। ১৬ হাজার কৃষদের মধ্যে ক্ষুদ্র, প্রান্তিক ও গরিব কৃষক প্রায় ৫০ শতাংশ।

তবে সরকারিভাবে বরাদ্ধকৃত উপজেলার ১৭শ’ কৃষকের নাম ইউনিয়ন পর্যায়ে কৃষি পুনবার্সন ও বাস্তবায়ন কমিটি যেভাবে নির্ধারণ করে দিয়েছে সে মোতাবেক কৃষকদের মধ্যে বিনামূল্যের সার-বীজ প্রদান করা হচ্ছে। তবে অনেক ক্ষুদ্র, প্রান্তিক ও গরিব কৃষকরা তিন ফসল ও সবজি চাষাবাদ করলেও তারা এসব সুবিধা পাচ্ছেন না। তাছাড়া জনপ্রতিনিধিরা দলীয়করন ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে তালিকা করে সুবিধা প্রদান করেন বলে অভিযোগ তুলেছেন।

উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের কৃষক মানিক মিয়া, রমজান আলী, ইসলাম উদ্দীন বলেন, গরিব হলেও তিন ফসলই চাষাবাদ করি। তাছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগে নানা সময়ে ক্ষতিগ্রস্ত হই। তারপরও বিনামূল্যের সার-বীজ আমাদের ভাগ্যে জুটে না।

কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দীন ১৭শ’ কৃষকের মধ্যে বিনামূল্যের সার-বীজ বিতরণের কথা স্বীকার করে বলেন, এই উপজেলায় প্রায় ১৬ হাজার আউশ চাষী রয়েছেন। তবে এখানে সরকারিভাবে যেটুকু বরাদ্ধ এসেছে সেভাবেই বিতরণ করা হচ্ছে। ইউনিয়ন পর্যায়ে চেয়ারম্যানকে প্রধান করে যে কমিটি রয়েছে তারাই তালিকা প্রদান করেছে সে অনুযায়ীই সার-বীজ বিরতণ করা হচ্ছে।

  •