শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ত্রাণ চুরি কঠোর হাতে দমন করতে হবে



নভেল করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর তান্ডবে সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশের অর্থনীতি স্থবির হয়ে পড়েছে। দেশের সিংহভাগ শিল্প প্রতিষ্টান ও ছোট কারখানা বন্ধ, ব্যবসা বানিজ্য বন্ধ, গণপরিবহন বন্ধ, আমদানি রফতানির উপর নেতিবাচক প্রভাব, রেমিট্যন্স প্রবাহে স্থবিরতা, মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত মানুষের কর্মসংস্থানের অভাব দেখা দিয়েছে। ফলে বেশীর ভাগ মানুষের জীবনে খাদ্য ও চিকিৎসা সংকট দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এ সংকট মোকাবেলায় সরকার মোট ৯৫ হাজার ৬১৯ কোটি টাকার প্রণোদনা সাপোর্ট ঘোষনা করেছে যা মোট জিডিপি র ৩.৩ শতাংশ। ওএম এস এর মাধ্যমে ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রী ও বিনামূল্যে বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী দেয়ার কার্যক্রম শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষনে বলেছেন, ভয় পাবেন না, সাহসের সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হবে। সারাবিশ্ব করোনা সমস্যায় জর্জরিত। আমরা বিশ্ব ব্যবস্থার বাহিরে নই। সরকার যখন যে ব্যবস্থা নেয়া দরকার তাই নেয়া হবে। কেউ আতঙ্ক ছড়াবেন না। সরকারী ত্রাণ ও চাল চুরি করলে তা কঠোর হাতে দমন করা হবে। চাল চোরদের তাৎক্ষনিকভাবে শাস্তির নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক পদক্ষেপ ও কঠোর হুশিয়ারির জন্য জনগণ আশান্বিত ছিলো।
কিন্তু আমরা বাস্তবে কি দেখতে পাই।
গত ১০/১১ দিনে সারা দেশে কয়েক হাজার বস্তা চাল চুরির অভিযোগে পাওয়া গেছে। এরমধ্যে ঠাকুরগাঁও এর বালিয়াকান্দতে ৬৩০ বস্তা, বরগুনার পাথরঘাটায় ৫৫০ বস্তা, যশোরের মনিরামপুরে ৫৫৫ বস্তা, নওগায় ৩৩৮ বস্তা, সারিয়াকান্দিতে ২৮৮ বস্তা, সিলেটে ১২৫ বস্তা, ঝালকাঠিতে ৫০ বস্তা, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ২০ বস্তা, বাগেরহাটে ১৮ বস্তা, পটুয়াখালীতে ১০ বস্তা, ময়মনসিংহর ত্রিশালে ১৬ বস্তা, বগুড়ার শিবগন্জে ১৩ বস্তা, নাটোরে ১৩বস্তা, জয়পুরহাটে ৭ বস্তা চাল চুরির খবর পাওয়া গেছে।
তাছাড়াও নবীগঞ্জে আউশকান্দি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন ১০ কেজি স্থলে ৫ কেজি করে চাল দেয়ার প্রামাণিক নিউজ করায় ৩ সাংবাদিককে ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে জখম করেছে। ২ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পরও রহস্যজনক কারনে তাকে গ্রেফতার করা হয় নি। উপরন্তু ঐ চালচোর আওয়ামী লীগ নেতা চেয়ারম্যান হারুন সংশ্লিষ্ট সাংবাদিক সহ জাতীয় পত্রিকার ৫ সাংবাদিক এর বিরুদ্ধে এক সাজানো নারী নির্যাতন মামলা দিয়েছে। পুলিশ কোন তদন্ত ছাড়া মামলাটি গ্রহন করে সাংবাদিকদের হয়রানি করছে।
টাঙ্গাইল মির্জাপুরের ভাতগাও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও চালের ডিলার আশরাফুল আলম বাচ্চু ও ছাত্রলীগ সভাপতি সাজেদুল ইসলাম খানকে ১৪ বস্তা চাল চুরির অভিযোগে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে ১৫ দিনের কারাদন্ড ও ডিলারশীপ বাতিল করেছে স্থানীয় প্রশাসন।
সিরাজগঞ্জে ১৭ বস্তা চাল সহ আটক করা হয়েছে আবুল হোসেন নামক এক ব্যক্তিকে। খাদ্য মন্ত্রনালয় বলেছে, ওএম এস এবং খাদ্যবান্ধব চাল বিক্রী ও বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা ও তদারকির সুস্পষ্ট নির্দেশ থাকা সত্তে¡ও কেন বা কি কারনে এত ব্যাপক ভাবে খাদ্যশস্য আত্মসাতের ঘটনা ঘটলো সে ব্যপারে বিস্তারিত ভাবে তদন্ত করে জানাতে এবং চাল চুরির সাথে জড়িত ব্যক্তিদের কঠোর শাস্তি দেয়ার নির্দেশ দিয়ে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন কে চিটি দেয়া হয়েছে।
চাল চুরির হিরিক দেখে বাধ্য হয়ে ১০টাকা কেজি দরে চাল বিক্রীর বিশেষ ওএম এস (খোলা বাজারে বিক্রি) স্থগিত করেছে খাদ্য মন্ত্রনালয়। ১৩ এপ্রিল খাদ্য মন্ত্রনালয়ের সচিব নাজমানারা খানুম সূত্রে এই খবর জানা যায়।
প্রধানমন্ত্রীর কড়া হুসিয়ারির পর ও কেন এমন ঘঠনা ঘটলো তা নিয়ে হতাশা ব্যক্ত করেন দেশবাসী। জনগণ মনে করেন দলীয় লোকদের বাদ দিয়ে প্রশাসন ও সেনাবাহিনীর মাধ্যমে ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রাখতে পারে। পাশাপাশি চাল চুরির সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

  •