মঙ্গলবার, ৯ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিয়ানীবাজারে ৪২ঘন্টা পর নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার



বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি:
বিয়ানীবাজার পৌর এলাকার শ্রীধরা থেকে আড়াই বছরের শিশু ছামি আহমদ নিখোঁজ হওয়ার ৪২ ঘন্টা পর তার মরদেহ পাওয়া গেছে। বুধবার দুপুরে নিজ বাড়ির পাশের একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
গত সোমবার বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে সে নিখোঁজ ছিল। সে শামীম মাহমুদ ও শাবানা বেগম দম্পতির ছেলে। ছামি নিঁখোজের ঘটনায় এদিন থানায় সাধারণ ডায়রী করে তার পরিবার। তার চাচাতো ভাই ফরহাদ মাহমুদ তানিম জানান, ছামি কথা বলতে পারে না। তার মুখমন্ডল গোলাকার এবং চোখের রঙ কালো। স্থানীয় কাউন্সিলর এমাদ উদ্দিন বলেন, নিহতের পরিবারের এ সংক্রান্ত কোন অভিযোগ নেই।
পুলিশ সূত্র জানায়, নিখোঁজের ৪৮ ঘন্টা পরও মরদেহ স্বাভাবিক ছিল। এতক্ষণে যে কোন মরদেহ ফুলে যাওয়ার কথা। এতে অন্য কোন কারণ থাকতে পারে। সরজমিন দেখা যায়, যে পরিত্যক্ত ডোবায় ছামির লাশ পাওয়া যায়, তার পাশেই ঘরোয়াভাবে তৈরী একটি দুলনা ঝুলানো রয়েছে। স্থানীয়দের ধারণা, খেলার ছলে হয়তো ওই শিশুটি অসাবধাণতাবশত: ডোবায় পড়ে যেতে পারে।
বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হিল্লোল রায় জানান, ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন ছাড়া প্রকৃত কারণ বলা যাবেনা। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি।

  •